কোভিড-১৯ মহামারির সময়ের পর থেকে তরুণদের বেকারত্ব উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে। – জনতার আওয়াজ
  • আজ বিকাল ৪:০৭, বুধবার, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৭ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

কোভিড-১৯ মহামারির সময়ের পর থেকে তরুণদের বেকারত্ব উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২ ৫:৩০ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২ ৮:২৫ অপরাহ্ণ

 

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২ এর ফলাফল অনুযায়ী দেশের বর্তমান জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৫১ লক্ষ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। প্রতিবেদনের তথ্যানুসারে, দেশের ১৫ থেকে ২৪ বছর বয়সী তরুণের সংখ্যা ৩ কোটি ১৫ লাখ ৬১ হাজার ৮১১, মোট জনসংখ্যার ১৯ দশমিক ১১ শতাংশ।

বাংলাদেশে সর্বশেষ শ্রমশক্তি জরিপ হয়েছে ২০১৭ সালে। জরিপ অনুযায়ী, দেশে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠী ৬ কোটি ৩৫ লাখ। আর তাঁদের মধ্যে কাজ করেন ৬ কোটি ৮ লাখ নারী-পুরুষ। দুই সংখ্যার মধ্যে বিয়োগ দিলেই পাওয়া যায় বেকারের সংখ্যা। আর সেটি হলো ২৭ লাখ। শতাংশ হিসাবে বাংলাদেশে বেকারত্বের হার ৪ দশমিক ২ শতাংশ। যেহেতু ২০১৭ সালের পরে শ্রমশক্তি জরিপ আর হয়নি সেহেতু এই সংখ্যাটা বর্তমানে কত তা সঠিক বলা যাচ্ছে না।

অন্য দিকে ‘দ্য গ্লোবাল এমপ্লয়মেন্ট ট্রেন্ডস ফর ইয়ুথ’ বা ‘বিশ্বজুড়ে তরুণদের কর্মসংস্থানের প্রবণতা ২০২২’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে আইএলও তথ্য মতে  এই মুহূর্তে বাংলাদেশি তরুণদের বেকারত্বের হার ১০ দশমিক ৬ শতাংশ। সংখ্যার হিসেবে ৩৩ লক্ষ ৪৫ হাজার ৫৫২ জন। কোভিড-১৯ মহামারির সময়ের পর থেকে তরুণদের বেকারত্ব উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে।

আপনি জেনে অবাক হবেন যে , প্রতিবছরই উচ্চশিক্ষা নিয়ে শ্রমবাজারে আসা শিক্ষার্থীদের প্রায় অর্ধেক বেকার থাকছেন অথবা যোগ্যতা অনুযায়ী চাকরি পাচ্ছেন না। বিশ্বখ্যাত ব্রিটিশ সাময়িকী ইকোনমিস্ট-এর ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) এক বিশেষ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে বাংলাদেশের বিভিন্ন  শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক পাশ করে বের হওয়া শিক্ষার্থীদের ৪৭% স্নাতকই বেকার।

সম্প্রতি বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) জরিপে উঠে এসেছে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলো থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের ৬৬ শতাংশ অর্থাৎ দুই-তৃতীয়াংশই বেকার থাকছেন।

ফ্রিল্যান্সিং হতে পারে সঙ্কট সমাধানের একটি মাধ্যম।

ফ্রিল্যান্সিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ৮ম। বিভিন্ন সময় প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী বাংলাদেশে ৬ থেকে ৭ লক্ষ ফ্রিলান্সার রয়েছে। প্রতিবেদনের সূত্র অনুযায়ী ২৭% মানুষ ফ্রিল্যান্সিং পেশার সাথে জড়িত।  বেকার জনগুষ্ঠীর এই বড় সংখ্যাকে কম্পিউটার বিষয়ক বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষ করে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারের মাধ্যমে দেশের জনসম্পদে রূপান্তর করা সম্ভব।

মু. আরিফুর রহমান
সি ই ও
নেবুলা আইটি বাংলাদেশ

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com