খােলা বাজার নীতি আজ পক্ষপাত ব্যাধিতে আক্রান্ত - জনতার আওয়াজ
  • আজ রাত ৯:২১, রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

খােলা বাজার নীতি আজ পক্ষপাত ব্যাধিতে আক্রান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: শুক্রবার, মার্চ ১১, ২০২২ ৮:৩২ পূর্বাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: শুক্রবার, মার্চ ১১, ২০২২ ৮:৩২ পূর্বাহ্ণ

 

সাধারণ মানুষের সবচেয়ে বড় দুঃখ তারা নিজের পায়ে দাঁড়াতে গিয়ে বার বার হােচট খায়।শির উঁচু করে তারা দাঁড়াতে পারে না। এজন্য দোষ কার?দেশের জনগণের নাকি তাদের যারা পরিচালিত করে তাদের।

রাজনীতি,অর্থনীতি, সমাজনীতি, সংস্কৃতি চিন্তা-চেতনা সবকিছুই পশ্চিমাদের ফরমূলা অনুযায়ী পরিচালিত হচ্ছে।

রাজনীতিতে পশ্চিমাদের ইঙ্গিতে সংসদীয় গণতন্ত্র—তথা সংসদকে অকার্যকর করে তােলা হয়েছে।কোরাম পুরাে হয়না,সংসদে শক্তিশালী বিরােধীদল থাকে না।

এরপর আসুন অর্থনীতির ক্ষেত্রে বিশ্ব ব্যাংক ও তার
মােড়ল রাষ্ট্রের ফ্রেমওয়ার্ক অনুযায়ী এমনই এক অর্থনীতি চালু করা হয়েছে যেখানে স্বদেশী পণ্য বাজারে খুঁজে পাওয়া যায় না। এর নাম নাকি মুক্ত বাজার অর্থনীতি।

বাজারে, ফুটপাতে, ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে সব খানেই বিশ্বব্যাংক ও দাতাগােষ্ঠীর দেশের পণ্যে ঠাসা।চিন্তা-চেতনা আর দেশীয় ভাবদ্বারা এখন আর নেই বললেই চলে। বাবু খাইছো কালচার শুরু হয়ে গেছে ফেইসবুক আর ইউটিউবের বদৌলতে উদ্দাম নৃত্য।

তেমনি মুক্ত বাজার অর্থনীতির নামে শুরু হয়ে গেছে অবাধ শুল্কমুক্ত পণ্য আমদানি—জিনিসও ভাল, মূল্যও কম। মানুষ কিনবেনা কেন। গালে হাত দিয়ে স্বদেশী কৃষক শ্রমিক বসে আছে, কোন কর্ম খালি নাই মাঠে-ঘাটে আর মিল কারখানায়। কারণ দেশীয় মিল কারখানায় উৎপাদন নেই। দেশীপণ্য এখন বাজারে চলে না।প্রতিযােগিতায় দেশী পণ্য মার খাচ্ছে। কৃষকরাও চাষাবাদ ছেড়ে দিচ্ছে। অনেক সময়
ফসল ফলাতে যে খরচ হয় তাও উঠে আসেনা। চাষাবাদ করেও লাভ নেই।তাহলে আমরা কি করলাম মুক্ত বাজার অর্থনীতির নামে বিদেশী পণ্যের জন্য স্থানীয় বাজার খুলে দিলাম।কিন্তু সেই প্রতিযােগিতার বাজারে বাংলাদেশের পণ্য টিকে থাকবে কিনা সেটা কি একবারও বিবেচনা করছি। খােলা বাজার নীতি আজ পক্ষপাত ব্যাধিতে আক্রান্ত হচ্ছে।

আমরা যে পরিমাণ পণ্য অফিসিয়াল ভাবে আমদানি করব ঠিক সমপরিমাণ পণ্য সেই দেশ আমাদের থেকে আমদানি করতে হবে এটাই নিয়ম। বাণিজ্যে সমতা না থাকলে এক দেশ উন্নত হবে অন্য দেশটি অতলে ডুবে যাবে। একটি দেশের কারণে আরেকটি দেশের শিল্প ও বাণিজ্যে সংকট সৃষ্টি হবে এটা বিশ্বায়ন বাণিজ্য নীতি হিসেবে আখ্যায়িত করা যায় না। এ ধরনের বাণিজ্য নীতিতে মূলত প্রভু আর ভৃত্য সম্পর্ক তৈরি করবে।

লেখক ও রাজনীতিবিদ
মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন
সদস্য,কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি জাতীয় পার্টি
কেন্দ্রীয় সহসভাপতি,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি
সভাপতি,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com