খুব শিগগিরই সব ধরনের সহযোগিতা নিয়ে ইউক্রেনের পাশে পর্তুগাল - জনতার আওয়াজ
  • আজ সন্ধ্যা ৭:৩৫, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

খুব শিগগিরই সব ধরনের সহযোগিতা নিয়ে ইউক্রেনের পাশে পর্তুগাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: মঙ্গলবার, মার্চ ১, ২০২২ ৮:৩৮ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: মঙ্গলবার, মার্চ ১, ২০২২ ৮:৩৮ অপরাহ্ণ

 

প্রবাস ডেস্ক

পর্তুগাল ইউক্রেন সরকারের অনুরোধে খুব শিগগিরই সামরিক সহযোগিতা পাঠাচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির জাতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জোয়াও গোমেস ক্রাভিনহো। তাছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহযোগিতায় তহবিলেও ৮ থেকে ১০ মিলিয়ন ইউরো সহযোগিতা প্রদান করার ঘোষণা দিয়েছেন। ২৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে পর্তুগাল রাশিয়ার ওপর চাপ প্রয়োগ করতে তাদের আকাশসীমা রাশিয়ান বিমানের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। একই সাথে গত কয়েকদিন আগে একটি রাশিয়ান যাত্রীবাহী বিমান পর্তুগালের দ্বীপ শহর মাদেইরাতে অবতরণ করলেও যাত্রী নামাতে দেওয়া হয়নি, ফলে রাশিয়ান মালিকানাধীন বিমানটি কিছুক্ষণ অবস্থান করার পর আবারো রাশিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

ইউরোপের অন্যতম দেশ হিসেবেও পর্তুগালে বিনিয়োগের মাধ্যমে বসবাসের অনুমতি পাওয়া যায় যাকে গোল্ডেন বিষয় হিসেবে অভিহিত করা হয়। যুদ্ধ শুরু হবার পর দ্বিতীয় প্রতিক্রিয়া হিসেবে পর্তুগাল সরকার রাশিয়ান গোল্ডেন ভিসা আবেদনকারীর সকলের আবেদন বাতিল করেছে।

একইভাবে ন্যাটোর প্রতিরক্ষা হিসেবে পর্তুগাল সরকার নেটো অঞ্চলের ইউক্রেন সীমান্তে কিছুদিনের মধ্যেই ১৭৪ জন সেনা মোতায়েনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে, মন্ত্রী জানিয়েছেন সেনাদের প্রস্তুত করতে কিছুটা সময় লাগছে খুব শিগগিরই তারা তাদের নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছবেন।

উল্লেখ্য, এ যুদ্ধ শুরুর দিন থেকে রাশিয়ান দূতাবাসের সামনে এবং পর্তুগালের বিভিন্ন শহরে এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় রাশিয়ান আগ্রাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ আন্দোলন চলছে। পর্তুগালের রাষ্ট্রপতিসহ স্থানীয় মেয়র এবং বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরাও এ প্রতিবাদ সমাবেশে অংশগ্রহণ করে ইউক্রেনের নাগরিকদের সাথে একাত্মতা পোষণ করছেন।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ