চট্টগ্রামে এস আলমের সুগারমিলে আগুন, এক লাখ টন চিনি পুড়ে যাওয়ার দাবি - জনতার আওয়াজ
  • আজ রাত ৪:৫১, বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

চট্টগ্রামে এস আলমের সুগারমিলে আগুন, এক লাখ টন চিনি পুড়ে যাওয়ার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪ ১০:৫৭ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪ ১০:৫৭ অপরাহ্ণ

 

জনতার আওয়াজ ডেস্ক
চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানার ইছাপুর এলাকায় এস আলম রিফাইন্ড সুগার মিলের গুদামে লাগা আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি। সোমবার বিকাল ৪টার দিকে মিলের ১ নম্বর গুদামে এ আগুন লাগে, যেখানে এক লাখ টন অপরিশোধিত চিনি ছিল। রাত ৮টা নাগাদও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুন লাগার পরপরই ফায়ার সার্ভিসের বিভিন্ন স্টেশনের ১৫টি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ করছে।

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ হারুন পাশা বলেন, গোডাউন ভর্তি সুগার ছিল। পাঁচতলা ভবনের মতো উঁচু গোডাউনটির আগুন নিয়ন্ত্রণে না আসলেও অনেকটাই কমে এসেছে। আগুনে কোনো হতাহত নেই দাবি করে তিনি বলেন, আশেপাশের স্থাপনাগুলোতে আগুন ছড়ানো ঠেকানো গেছে। কর্ণফুলী থানার মইজ্জারটেক সংলগ্ন ইছাপুর এলাকায় ১১ মেগাওয়াটের এস আলম পাওয়ার প্লান্টের পাশেই এস আলম রিফাইন্ড সুগার মিলটি অবস্থিত। পাওয়ার প্ল্যান্টের বিদ্যুৎ দিয়েই চিনি কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম চলে।

এস আলম গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক সুব্রত কুমার ভৌমিক বলেন, এস আলম সুগার মিলের গোডাউনে কী কারণে আগুন লেগেছে তা জানা যায়নি। ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে। সুগার মিলের একজন কর্মকর্তা বলেন, গোডাউন-১ এ এক লাখ টনের মতো সুগার ছিল।

পাশের স্থাপনা এবং পাওয়ার প্ল্যান্টে আগুন ছড়ায়নি। সুগার মিল ও পাওয়ার প্ল্যান্ট মিলিয়ে কর্মী সংখ্যা এক হাজারের মতো বলে জানান তিনি। দুইদিন আগে নগরীর বাকলিয়া এক্সেস রোডের কাছে এস আলম গ্রুপের নির্মাণাধীন একটি কোল্ড স্টোরেজে আগুন লেগেছিল।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ