পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ন্যায় শিক্ষক নিয়োগে কমিশন গঠনের দাবি - জনতার আওয়াজ
  • আজ বিকাল ৪:০৬, বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ন্যায় শিক্ষক নিয়োগে কমিশন গঠনের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: মঙ্গলবার, মার্চ ১৫, ২০২২ ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: মঙ্গলবার, মার্চ ১৫, ২০২২ ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ

 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ন্যায় শিক্ষক নিয়োগ কমিশন গঠন এবং শিক্ষা প্রশাসনের বিভিন্ন আনুপাতিক হারে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের পদায়নের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি। এসময় সমিতির পক্ষ থেকে মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণেরসহ ১১ দফা দাবিও করা হয়।

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি করা হয়।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি অন্যান্য দাবি গুলো হলো- আসন্ন ঈদের পূর্বেই সরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের ন্যায় পৃথক বাড়ী ভাড়া ও চিকিসা ভাতা প্রদান। পূর্ণাঙ্গ পেনশন প্রথা চালুকরণ এবং পেনশন প্রথা চালু না হওয়া পর্যন্ত অবসর গ্রহণের ৬ মাসের মধ্যে অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাস্টের পাওনা প্রদান এবং শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন থেকে অতিরিক্ত ৪% কর্জন বন্ধ করা। স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তকরণ। সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ন্যায় বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ও সহকারি প্রধান শিক্ষক এর বেতন স্কেল যথাক্রমে ৬ষ্ঠ ও ৭ম গ্রেডে প্রদান। এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বদলি প্রথা চালু করা। শিক্ষক কর্মচারীদের চাকরির বয়স সীমা ৬৫ বছরে উন্নীত করণ। করোনায় ক্ষতি নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের আর্থিক প্রণোদনা এবং বিনামূল্যে শিক্ষা সহায়ক ডিভাইস প্রদান। ম্যানেজিং কমিটি/গভর্নিং বডির সদস্যদের নুন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ। শিক্ষা ক্ষেত্রে জমান সরকারি ও বেসরকারি সকল বৈষম্য দূর করার লক্ষ্যে শিক্ষানীতি-২০১০ -এর দ্রুত বাস্তবায়ন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সমিতির সভাপতি অধ্যক্ষ বজলুর রহমান মিয়া বলেন, এমপিওভুক্ত শিক্ষক কর্মচারীগণ মাত্র ১,০০০ টাকা বাড়ি ভাড়া, ৫০০ চিকিৎসা ভাতা এবং ২৫% উৎসব ভাতা পান। শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসরে যাবার পর অবসর সুবিধা ও কল্যাণ ট্রাসেটর টাকা পেতে বছরের পর বছর অপেক্ষা করতে হয়। ফলে অনেক শিক্ষক/কর্মচারী টাকা পাওয়ার পূর্বেই অর্থাভাবে বিনা চিকৎসায় মৃত্যুবরণ করেন।

তিনি আরও বলেন, একই কারিকুলামের অধীন সিলেবাস, একই একাডেমিক সময়সূচি, একইভাবে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও উত্তরপত্র মূল্যায়নের কাজে নিয়োজিত থেকেও আর্থিক সুবিধার ক্ষেত্রে সরকারি বিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারী ও বেসরকারি এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে পাহাড় সম বৈষম্য রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলন থেকে আগামী ২৩ মার্চ সারাদেশে জেলা সদরে শিক্ষক-কর্মচারীদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল এবং জেলা প্রশাসক -এর মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করার কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।কেন্দ্রীয়ভাবে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল এবং ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে বলে জানায়।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শেখ কাওছার আহমেদ। উপদেষ্টামণ্ডলীর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য বাবু রঞ্জিত কুমার সাহা, সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যক্ষ মো. আবুল কাশেম, সহ সভাপতি আলী আসগর হাওলাদার ও বেগম নূরুন্নাহারসহ প্রমুখ শিক্ষক নেতৃবৃন্দ।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ