শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে এক কুৎসিত সংগঠনের পরিণত করেছেন: রিজভী - জনতার আওয়াজ
  • আজ রাত ৮:৪১, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে এক কুৎসিত সংগঠনের পরিণত করেছেন: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ২:৩১ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ২:৩১ অপরাহ্ণ

 

নিউজ ডেস্ক
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে গত শনিবার রাতে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগ কর্তৃক নারীর শ্লীলতাহানির ঘটনা উল্লেখ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহল কবির রিজভী বলেছেন,’অবৈধ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে এক কুৎসিত সংগঠনের পরিণত করেছেন।তিনি নারীর শ্লীলতাহানিকে অবাধ করে দিয়েছেন ছাত্রলীগের জন্য।

তিনি বলেন,’উনি শেখ হাসিনা নিজের দেশের মধ্যে ইন্টার্নাল নিরাপত্তা বাহিনী তৈরি করেছে। তার নাম ছাত্রলীগ। তাদেরকে অবাধ স্বাধীনতা দেয়া হয়েছে যে তোমরা যা ইচ্ছা তাই করো কিন্তু বিএনপি যুবদল ছাত্রদলের মিছিল দেখলেই ঝাঁপিয়ে পড়বে। বেআইনি অস্ত্র দিয়ে ধাওয়া করবে এই লাইসেন্স তাদেরকে দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় জিয়া পরিষদের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন,’অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনে ভয় পান শেখ হাসিনা। কিন্তু ছাত্রলীগ নারী নির্যাতন করলে তিনি শেখ হাসিনা কোন কথা বলেন না। শেখ হাসিনা নারীর শ্লীলতাহানিকে অবাধ করে দিয়েছেন ছাত্রলীগের জন্য। ২০২০ সালে সিলেটে বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে নির্যাতন করা হয়েছে তার কোন বিচার হয় নাই কারণ কোর্ট তাদের পুলিশ তাদের। তাদের বিচার হবে কেন?

রিজভী বলেন,’বিচার হয় গণতন্ত্রের কথা বললে মিছিল বের করলে তাদেরকে ধরে নিয়ে বন্দী করে রাখা হয়। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর,মির্জা আব্বাস, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, শামসুজ্জামান দুদু ও মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল তারা আজ জেলে কারণ তারা বক্তৃতায় গণতন্ত্রের কথা বলেছিল। আর যুবলীগ ছাত্রলীগ ক্যাসিনো খুলবে সুন্দরী নারীদেরকে নিজেদের সম্পত্তি মনে করবে গত রবিবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে যে জঘন্য ঘটনা ঘটেছে তারপরও কি প্রধানমন্ত্রী আপনার টনক নড়েনি? আপনি শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে এক কুৎসিত সংগঠনের পরিণত করেছেন। তাদেরকে দিয়ে আপনি বিশ্বজিৎকে হত্যা করেছেন আবরার কে হত্যা করিয়েছেন। আর এই কারণে তারা আস্কারা পেয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে শ্রীলতাহানি করেছে। এদেশের কাছে কোন নারী শিশু সাধারণ জনগণের কোন নিরাপত্তা নেই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,’আপনার অন্যায় অত্যাচারের কারণেই দেশে গণতন্ত্র ফিরে আনতে হবে।গণতন্ত্র ফিরে আসলে ছাত্রলীগ যুবলীগের যারা অন্যায় করেছে তাদের বিচার হবে।

রিজভী আরও বলেন, আমরা এখন দেখছি দেশের স্বাধীনতার সার্বভৌমত্ব জলাঞ্জলি দিয়ে মায়ানমারের মর্টার শেলে বাংলাদেশের জনগণ মারা যাচ্ছে কিন্তু তারা একটি বিবৃতি দেয়নি। একটু প্রতিবাদও করে না প্রধানমন্ত্রী,আইনমন্ত্রী,পররাষ্ট্রমন্ত্রী। কারণ মাথা তো আগেই বিক্রি করে দিয়েছে যারা মাথা বিক্রি করে তারা কিছুই বলতে পারে না।

এ সময় বিএনপি’র চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জিয়া পরিষদের সভাপতি প্রফেসর আব্দুল কুদ্দুস,মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম,যুবদলের সাহিত্য প্রকাশনা সম্পাদক মেহবুব মাসুম শান্ত,ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি ওমর ফারুক কাওসার প্রমুখ উপস্থিত ছিল।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ