সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় টিকে আছে : মির্জা ফখরুল - জনতার আওয়াজ
  • আজ বিকাল ৫:১৮, রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় টিকে আছে : মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: শুক্রবার, মার্চ ৪, ২০২২ ৮:৩৬ পূর্বাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: শুক্রবার, মার্চ ৪, ২০২২ ৮:৩৬ পূর্বাহ্ণ

 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ভালোভাবে বিদায় নিতে চাইলে সরকারকে দুর্নীতি বন্ধ করতে বলেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যদি বাইরে এসে গাড়ির ভেতরে বসে অন্তত হাত দেখান তাহলে এদেশের মানুষকে কেউ আটকে রাখতে পারবে না।

শুক্রবার (৪ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনুকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে ও মুক্তির দাবিতে এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় টিকে আছে। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের আটক করে রাখার কৌশল নিয়েছে। খালেদা জিয়াকে ভয় পায় বলে তাকে মুক্তি দিচ্ছে না। বাংলাদেশের মানুষ জেগে উঠেছে, গ্রেপ্তার নির্যাতন করে আর শেষ রক্ষা হবে না।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ভালোভাবে বিদায় নিতে চাইলে দুর্নীতি বন্ধ করুন, নয়তো জনগণ জবাব দেবে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে ক্ষমতা হস্তান্তর না করলে সরকারের রক্ষা হবে না।

বিএনপির এই মহাসচিব বলেন, রফিকুল আলম মজনুকে কেন গ্রেফতার করেছে। কারণ, তিনি জনপ্রিয় নেতা। সে বাইরে থাকলে আরও বেশি সংগঠন করবে। আন্দোলনকে বেগবান করবে। খালেদা জিয়া একটা হেমিলনের বংশীবাদক। তিনি তার সারাটা জীবন গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন।

তিনি দুইবার জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তাই তাকে সরকার মারাত্মকভাবে ভয় পায়। তিনি যদি বাইরে আসেন ও গাড়ির ভেতর বসে অন্তত হাত দেখান, তাহলে এদেশের মানুষকে কেউ আটকে রাখতে পারবে না। সাহস থাকলে তাকে ছেড়ে দেন, বাইরে আসতে দেন।

নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের প্রস্তুতির আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারকে পরাজিত করতে হবে। জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সরকারকে একটা নিরপেক্ষ-নির্দলীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। সেটা একমাত্র তাদের রক্ষার উপায়। এছাড়া তাদের কোনো রক্ষা পায় নাই।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে ক্ষমতায় এসেছে। আপনাদের নিশ্চয়ই মনে আছে, হিজাব পরে ও হাতে তজবি নিয়ে জনগণের সামনে গিয়ে বলেছিলেন অতীতে যদি কোনো ভুল ত্রুটি করে থাকি তাহলে মাফ করে দিয়েন। আমাদের একবার ভোট দেন। তখন মানুষ ভোট দিয়েছিল। তখন আরও বলেছিল ১০ টাকা কেজি চাল খাওয়াবে, বিনা পয়সায় সার দেবে ও ঘরে ঘরে চাকরি দেবে।

‘এখন কি তার একটাও তারা পালন করেছে, করেনি। উপরন্তু এখন ৭০ টাকা চালের দাম, সারের দাম ১০০ গুণ বেশি, চাকরি পেতে হলে আওয়ামী লীগের শিষ্য ছাড়া তো চাকরি পাওয়া যায় না, উপরন্তু ২০ লাখ টাকা ঘুস দিতে হয় কমপক্ষে। এই সরকার জনগণের বিরুদ্ধে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুল, ঢাকা উত্তর বিএনপির সদস্যসচিব আমিনুল হক, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ইশরাক হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com