সাবেক স্বামী শফিকের হাত থেকে বাঁচতে চায় বাউল শিল্পী পাখি সরকার - জনতার আওয়াজ
  • আজ সকাল ১১:০৯, শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

সাবেক স্বামী শফিকের হাত থেকে বাঁচতে চায় বাউল শিল্পী পাখি সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২৩ ২:৩৭ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২৩ ২:৩৭ অপরাহ্ণ

 

নিউজ ডেস্ক
সাবেক স্বামী শফিক কতৃক প্রাণনাশের হুমকি ও হয়রানী থেকে বাঁচতে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহায়তা চেয়েছেন বাউল শিল্পী পাখি।

রবিবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে সেগুনবাগিচা বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সহায়তা চান।

পাখি সরকার বলেন, আমি পাখি সরকার বাংলাদেশের একজন বাউল শিল্পী। আমি প্রায় দুই যোগ ধরে দেশ বিদেশে বাউল গান পরিবেশন করে টাকা উপার্জন করি। গান করে টাকা উপার্জন করাই আমার একমাত্র পেশা। আমার সাবেক স্বামী শফিক একজন সৌদি প্রবাসী। শফিকের সাথে ২২.৩.২০১৩ তারিখে ৮,০০,০০০ (আট লক্ষ) টাকা দেনমোহর ধার্য্য করে আমার বিবাহ সম্পন্ন হয়। দাম্পত্য জীবনে আমাদের একটি ছেলে সন্তান হয়। ছেলেটি বর্তমানে নাকে টিউমার জনিত কারণে অন্ধ হয়ে আমার সাথে আছে। আমার ছেলে অসুস্থ হয়ে পড়লেও সে কোন খোঁজ খবর নেয়নি।

তিনি বলেন, শফিকের আগের একটি বউ আছে সেটিও সে গোপন করেছিল। সে আমাকে নানাভাবে হয়রানী ও নির্যাতন করায় গত ২.১০.২০২০ তারিখ শফিককে তালাকের নোটিশ প্রদান করি। উক্ত তালাক সিটি কর্পোরেশন শালিশ কর্তৃক কার্যকর হয়। তালাক কার্যকর হলে যথা সময়ে আমি মো. আমির হোসেনকে বিবাহ করে দাম্পত্য জীবন শুরু করি। আমার দাম্পত্য জীবনে বর্তমান স্বামীর ঔরষে ১টি ছেলে সন্তান জন্ম গ্রহণ করেন। আমার প্রথম স্বামী শফিক ২য় বিবাহ মেনে নিতে না পারায় আক্রোশের বসবতি হয়ে সৌদি আরব থেকে তার নিজের ছবি ব্যবহার করে ’নরসিংদী শহর’ নামীয় ফেসবুক একাউন্ট খুলে আমাকে নিয়ে বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে, বিভিন্ন জনের সাথে আমার ছবি কাট পিছ পূর্বক এডিট করে বিভিন্ন পোষ্ট আপলোড করে। এমনকি আমার নিজের সন্তানকে নিয়ে আজে বাজে লিখে পোষ্ট দেয়। উহাতে আমার মান সম্মানহানীসহ বিব্রত অবস্থায় পরি। এ সংক্রান্তে আমি মিরপুর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করি। যাহার নং—১৮৫৭। তারিখ ২৩.১০.২০২২ইং।

তিনি আরো বলেন, শফিক তার অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার হীনমানষে আমাকে তার আয়ত্বে আনার জন্য সৌদি আরব থাকাবস্থায় টেলিফোনের মাধ্যমে বিভিন্নভাবে আমার জীবন নাশের হুমকি দিয়ে আসতে থাকে। এক পর্যায়ে আমি কোন পালাগানের অনুষ্ঠানের স্টেজে গান পরিবেশন করতে উঠলে, মিরপুরস্থ বাউল সমিতিতে হাজির হলে জনৈক অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির মাধ্যমে ঢাকা শহরের বখাটে ছেলেদেরকে দিয়ে আমাকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল ছুড়ে বাউল সমিতিতে যেতে বাধা দেয়। বাউল সমিতির নেতাদেরও নানাভাবে হুমকি দেয় ফলে তারাও বিভিন্ন স্টেজ শো’র প্রোগ্রাম বন্ধ করে দেয়। যাতে আমি বাউল গানের পরিবেশনের কোন কন্ট্রাক্ট করতে না পারি সে ব্যবস্থাও করে।
আমি এমন পরিবেশ পরিস্থিতিতে অসহায় হয়ে আইনগত প্রতিকার পাওয়ার জন্য স্থানীয় থানা কর্মকর্তাদের দারস্থ্য হলে আইনগত কোন প্রতিকার দিতে পারে নাই। বাধ্য হয়ে আমি মহান পেশা বাউল গানের স্টেজ বন্ধ করে দিয়ে বেকার হয়ে সংসার পরিচালনা করছি।

সংবাদ সম্মলনে পাখি সরকার জানান, গত আগস্ট মাসের ১ম সপ্তাহের শেষের দিকে আমার সাবেক স্বামী সৌদি আরব থেকে ছুটিতে বাংলাদেশে আসেন। বাংলাদেশে এসে বিভিন্ন লোকের মাধ্যমে আমার বর্তমান ঠিকানা সনাক্ত করে তার ছেলে সন্তানকে দেখাশুনার উছিলা করে গত ১২.৮.২০২৩ তারিখ সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় আমার বর্তমান স্বামীর অনুপস্থিতিতে বাসায় প্রবেশ করে। এক পর্যায় আমার মা এবং সন্তানসহ এক রুমে থাকাবস্থায় অন্য রুমে বসে বাদিনীর সাথে ছেলের খোজ খবর নেওয়ার সময় আমি কিছু বুঝে উঠার পূর্বেই হঠাৎ করে রুমের দরজা লক করে দিয়ে আমাকে জোর পূর্বক ধর্ষণ চেষ্টা করে এবং মারধর করে। আমার শরীরে বিভিন্নস্থানে নীলা ফুলা জখম করে। আমি এ ব্যাপারে নারী শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মামলা দায়ের করি। মামলাটি বর্তমানে সিআইডিতে তদন্তনাধীন আছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে আমার সাবেক স্বামী আমাকে নানাভাবে হয়রানী করছে। আমার লোকদের নানাভাবে হয়রানী করছে। আমি যাতে গান না গাইতে পারি সে জন্য আমার সাথে যারা পালা গান করেন তাদেরকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে। এমনকি আমার সাথে গান করতে চাইলে তাদের উপর হামলা করাচ্ছে। কয়েকদিন আগে বাউল শিল্পী সুজন সরকার আমাকে একটি গানের প্রোগ্রামে নিতে চাইলে তার উপরও হামলা করা হয়। এ ব্যাপারে সে দারুস সালাম থানায় জিডি করেছেন। তিনি সৌদি আরবে থাকলেও মিরপুরে বিভিন্ন প্রভাবশালীকে ম্যানেজ করে আমাকে সমিতির সদস্য থেকে গত ৬ মাস আগে বাদ দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। আমি একজন জনপ্রিয় শিল্পী হওয়া সত্বেও আমি কোন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারি না। এমনকি জীবন নিয়ে সন্তানদের নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছি। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি অনুরোধ, আমাকে আমার পেশা তথা বাউল গান যাতে করতে পারি এবং পরিবার নিয়ে শান্তিতে বসবাস করতে সে ব্যাপারে প্রযোজনীয় সহায়তা করার আকুল আবেদন জানাচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com