সিলেটে উদযাপিত হয়েছে সাত শ বছরের ঐতিহ্যবাহী লাকড়ি তোড়া উৎসব - জনতার আওয়াজ
  • আজ সকাল ১০:৪৩, মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

সিলেটে উদযাপিত হয়েছে সাত শ বছরের ঐতিহ্যবাহী লাকড়ি তোড়া উৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: সোমবার, মে ৬, ২০২৪ ১০:৫২ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: সোমবার, মে ৬, ২০২৪ ১০:৫২ অপরাহ্ণ

 

জনতার আওয়াজ ডেস্ক
সিলেটে উদযাপিত হয়েছে সাত শ বছরের ঐতিহ্যবাহী লাকড়ি তোড়া উৎসব। এ দিন হযরত শাহজালাল (রহ.) ৩৬০ আউলিয়াকে সঙ্গে নিয়ে সিলেটে এসে তখনকার রাজা গৌর গোবিন্দকে পরাজিত করে সিলেট জয় করেন। এরপর থেকেই শাহজালাল ভক্তরা এই দিনকে লাকড়ি তোড়া উৎসব হিসেবে পালন করে আসছেন। কেউ কেউ এই দিনকে সিলেট বিজয় দিবস হিসেবে অভিহিত করেন।

শাহজালাল (রহ.) মাজারে বার্ষিক ওরস উপলক্ষে ওরসের তিন সপ্তাহ আগে এ উৎসব হয়।

আজ সোমবার (৬ মে) সকাল থেকে হাজারো ভক্তরা ‘শাহজালাল বাবা কী জয়’ ‘৩৬০ আউলিয়াকি জয়’ ‘লালে লাল বাবা শাহজালাল’ স্লোগান দিয়ে শাহজালাল ভক্তরা লাক্কাতুড়া বাগান অভিমুখে রওয়ানা দেন। পরে তারা লাকড়ি নিয়ে দরগাহে ফিরে আসেন।

সকাল থেকেই সিলেট শহর ও শহরতলী, বিভিন্ন উপজেলা থেকে বাদ্য বাজিয়ে দরগাহ প্রাঙ্গণে শুরু হতে থাকেন মানুষজন। শুধুমাত্র সিলেট শহর নয় অন্যান্য জেলা, মাজার-খানকা শরিফ, বাউল সংগঠন ও গ্রামগঞ্জ থেকে মানুষজন আসেন এই লাকড়ি তোড়া উৎসবে।

ইতিহাসবিদরা বলেন, শাহজালাল (রহ.) জীবদ্দশায় লাকড়ি সংগ্রহ করে রান্না করতেন। সেই ঐতিহ্য রক্ষা করে ৭শ’ বছর ধরে ওরসের তিন সপ্তাহ আগে লাকড়ি তোলা উৎসব করা হয়। লাকড়ি সংগ্রহ করার পর নির্দিষ্ট স্থানে জমা করে রাখা হয়। আর এই লাকড়ি দিয়েই ওরসে শিরনি রান্না করা হয়ে থাকে।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com