১০ ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে যুক্তরাজ্য বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে অনুষ্টিত - জনতার আওয়াজ
  • আজ সকাল ৬:০৫, বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

১০ ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে যুক্তরাজ্য বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে অনুষ্টিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: বুধবার, জানুয়ারি ১০, ২০২৪ ১০:৫৭ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: বুধবার, জানুয়ারি ১০, ২০২৪ ১০:৫৭ অপরাহ্ণ

 

অভিলম্বে ৭ জানুয়ারির ডামি নির্বাচন বাতিল করতে হবে
স্টাফ করসপন্ডেন্ট
ফ্যাসিস্ট হাসিনা সরকারের ভাগ ভাটোয়ার ৭ জানুয়ারির প্রহসনের ডামি নির্বাচনের প্রতিবাদে ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার ৯ জানুয়ারি লন্ডনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে করেছে যুক্তরাজ্য বিএনপি। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও যুক্তরাজ্যে বিএনপির সভাপতি এম এ মালিকের সভাপতিত্বে এবং কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য ও যুক্তরাজ্য বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কয়ছর এম আহমেদ এর পরিচালনায় অনুস্টিত বিক্ষোভ সমাবেশে দুপুর ১৩:০০ টা থেকে খণ্ড খণ্ড মিছিল সহকারে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী ও প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটির শত শত নেতৃবৃন্দ যোগ দেন। বিক্ষোভকারীরা হাতে ব্যানার, ফেস্টুন ও প্ল্যাকার্ড নিয়ে ৭ জানুয়ারি অনুস্টিত ডামি প্রহসনের নির্বাচনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অভিলম্বে এই ডামি নির্বাচন বাতিল এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে স্লোগান দিতে থাকেন।

বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দরা ৭ই জানুয়ারির প্রহসনের ডামি নির্বাচন বর্জনের কারণে দেশবাসীকে যুক্তরাজ্য বিএনপির পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। বক্তারা বলেন, ৭ই জানুয়ারির প্রহসনের ডামি নির্বাচন বাংলদেশের জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে বর্জন করেছে ।গণতন্ত্রকামী বিশ্ববাসী বিরোধী দলবিহীন এই নির্বাচনকে প্রহসনের নির্বাচন বলে স্বীকৃতি দিয়েছে। তাই অবিলম্বে এই নিবাচন বাতিল ও পদত্যাগ করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের জোর দাবি জানান। বক্তারা বলেন, দেশে একদলীয় বাকশালি শাসনকে প্রলম্বিত করতে বিরোধী দলবিহীন একতরফা প্রহসনের ডামি নির্বাচনের নামে রাস্ট্রের হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করেছে ফ্যাসিবাদী হাসিনা সরকার। ভাগ ভাটোয়ার পাতানো এই ডামি নির্বাচনের ফলাফল আগে থেকে নির্ধারিত রাখা ছিল । ক্ষমতা পিপাসু স্বৈরাচারী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলা শুরু করেছে এবং ক্ষমতার লোভে দেশকে গৃহযুদ্ধের দিকে উস্কে দিচ্ছে। দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বকে বিসর্জন দিয়ে ফ্যাসিস্ট হাসিনা লেন্দুপ দর্জির ভুমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। ৭ জানুয়ারির একতরফা প্রহসনের ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে দেশে বাকশালের নতুন সংস্করণ চালু করেছে। দেশকে সমগ্র বিশ্ববাসী থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে যা বাংলাদেশকে দেউলিয়া রাস্ট্রে পরিনত করবে।

বক্তারা বলেন, গণতন্ত্র পূনরুদ্ধার ও জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্টা না হওয়া পর্যন্ত এ দেশের আপামর জনগন রাজপথ ছাড়বে না। বিক্ষোভ সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী, মাদার অফ ডেমোক্রেসি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং সিনিয়র নেতৃবৃন্দ সহ সকল রাজবন্দীর মুক্তির চলমান আন্দোলনকে ত্বরান্বিত করতে প্রবাসীদেরকে যার যার অবস্থান থেকে দেশের মুক্তিকামী জনগণের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানানো হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মাহিদুর রহমান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সহসভাপতি মুজিবুর রহমান মুজিব, আলহাজ্ব তৈমুছ আলী, টাওয়ার হেমলেটস কাউন্সিলের সাবেক ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলার অহিদ আহমেদ, সহভাপতি কাজী ইকবাল হোসেন দেলোয়ার, আবেদ রাজা, এম এ মুকিত, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক পারভেজ মল্লিক, যুগ্ম সম্পাদক খসরুজ্জামান খসরু, গুলজার আহমেদ, মিসবাহুজ্জামান সোহেল, আজমল হোসেন চৌধুরী জাবেদ, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন ইউরোপের কোঅর্ডিনেটর কামাল উদ্দিন, ঢাকা দক্ষিন বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার হোসেন টিপু, সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক সামসুর রহমান মাহতাব, সহসাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আলম, আসাদুজ্জামান আহমেদ, মোস্তফা সালেহ লিটন, সালেহ আহমদ জিলান, এডভোকেট খলিলুর রহমান, সেলিম আহমেদ ( সহ দপ্তরের দায়িত্বে ), কেন্দ্রীয় যুবদলের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক (যুগ্ম সম্পাদক পদ মর্যাদা) ও যুক্তরাজ্য যুবদলের সভাপতি রহিম উদ্দিন, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের আন্তর্জাতিক সম্পাদক( সহসভাপতি পদ মর্যাদা) ও যুক্তরাজ্য সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নাসির আহমেদ শাহিন, যুক্তরাজ্য বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোশাহিদ তালুকদার, প্রচার সম্পাদক ডালিয়া লাকুরিয়া, কোষাধ্যক্ষ সালেহ গজনবী, কেন্দ্রীয় জাসাসের সাবেক সহসভাপতি এম এ সালাম, কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক সহ আন্তর্জাতিক সম্পাদক এনামুল হক লিটন, কেন্দ্রীয় যুবদলের নির্বাহী সদস্য ও যুক্তরাজ্য যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের নির্বাহী সদস্য শফিকুল ইসলাম রিবলু, কেন্দ্রীয় যুবদলের নির্বাহী সদস্য বাবর চৌধুরী, স্বেচ্ছাসেবক দলের নির্বাহী সদস্য এ জে লিমন, মহিলা দলের সদস্য সচিব অঞ্জনা আলম, যুক্তরাজ্য বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সেবুল মিয়া, সাসেক্স বিএনপির সাবেক সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, ইস্ট লন্ডন বিএনপির সাবেক সভাপতি ফখরুল ইসলাম বাদল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম লিটন, লন্ডন নর্থ ওয়েস্ট বিএনপির সাবেক সভাপতি হাজী এম এ সেলিম, নিউহাম বিএনপির সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, কেন্ট বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক রুহুল ইসলাম রুলু, কার্ডিফ বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম, যুক্তরাজ্য বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক ইমতিয়াজ এনাম তানিম, ধর্ম সম্পাদক আব্দুস শহীদ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক সাদিক হাওলাদার, লন্ডন মহানগর বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ চৌধুরী, যুক্তরাজ্য বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক মইনুল ইসলাম, সহ প্রবাসী কল্যাণ বিষয় সম্পাদক এম আরিফ আহমেদ, সহ বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ শামিম আহমেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য শরীফ উদ্দিন ভুঁইয়া বাবু, ফয়সল আহমেদ, নজরুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রনেতা সাইফুল ইসলাম মিরাজ,

লন্ডন মহানগর বিএনপির সহসভাপতি আব্দুর রব, আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-সাধারণ সম্পাদক তুহিন মোল্লা, সহসাংগঠনিক সম্পাদক তোফায়েল হোসেন মৃধা, জামাল উদ্দিন মাহমুদ চৌধুরী, দেলোয়ার হোসেন. ইমরান হোসেন, শফিকুল ইসলাম তুহিন, মবিন ভুইয়া কাজল, মোঃ নুরুল ইসলাম তোতা মাস্টার, নিউহাম বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল করিম নিপু, ইস্ট লন্ডন বিএনপির কবি কাওছার, মাওলানা শামিম আহমেদ, কামরুল চৌধুরী, লন্ডন মহানগর বিএনপি নেতা আব্দুল হক শাওন, আমির হোসেন, মুজিবুর রহমান মুজিব, বাচ্চু মিয়া, গোলজার আহমদ, মো: আশরাফুল আলম, এ কে এম নেছার উদ্দিন, মো: তারেক উদ্দিন, শেরওয়ান আলী, সাইদ সারোয়ার টিটু, আলী উজ্জল, ইফতেখার হোসেন চৌধুরী সাকী, মোঃ ফজল আহমদ, হালিমুল ইসলাম হালিম, আল মুমিন, রফিক আহমদ, শাহেদ আহমদ, এম আশরাফ উদ্দিন, সাহেদ আহমদ, আল রায়হান, ফখরুল মিয়া, সোয়েব ইসলাম, মো পারভেজ মিয়া সুজা, আজমল আলী, মোঃ মিজানুর রহমান, এম আশরাফ উদিদন, জাকির হোসেন খান, মোঃ বিপ্লব মাহামুদ, সৈয়দ তারেক রশিদ, মো: ফান্টু, সুয়েব আহমদ, এইচ এম ওবায়দুল ফাত্তাহ, মামুন সরকার, নুরল ইসলাম মাসুদ, কবির আহমদ, জাহিদ হাসান শোভন জমিদার, রোহান তারিক, কবির আহমদ, ফরহাদ আহমদ, মোঃ সাইফুর আলম, জাহিদুল ইসলাম, সোয়েব ইসলাম, কামরুল হাসান ভূঁইয়া, যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুল হক রাজ, সহসভাপতি দেওয়ান আব্দুল বাসিত, বাকি বিল্লাহ জালাল, আক্তার হোসেন শাহিন, শাজাহান আলম, সানুর মিয়া, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ লায়েক মোস্তাফা, সৈয়দ মামুন আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি শাহ জামাল, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম শিমু, জাহেদ তালুকদার, আজিম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া, লন্ডন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক শেখ সাদেক আহমেদ, আলিফ মিয়া, আলা উদ্দিন, জাফরুল হক বেগ, আব্দুস সামাদ রাজ, নুরুল আফসার লিমন, আহসানুল আম্বিয়া শোভন, মোঃ ফয়েজ উল্লাহ, মোঃ আরিফুল ইসলাম উজ্জ্ব প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ