কেবিনেটে দুর্নীতিবাজদের নিয়ে আলোচনা হয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী - জনতার আওয়াজ
  • আজ রাত ১০:৫৫, শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

কেবিনেটে দুর্নীতিবাজদের নিয়ে আলোচনা হয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: রবিবার, জুন ৩০, ২০২৪ ১:০৪ পূর্বাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: রবিবার, জুন ৩০, ২০২৪ ১:০৪ পূর্বাহ্ণ

 

জনতার আওয়াজ ডেস্ক
সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, ‘কেবিনেটে আলোচনা হয়েছে, অপরাধী ও দুর্নীবাজদের দৃষ্টামূলক শাস্তি দেওয়া হবে।’

শনিবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে কল্যাণ পার্টির বিশেষ কাউন্সিলে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। দুর্নীতিবাজদের বিষয়ে মোজাম্মেল হক বলেন, ‘মানুষের চাহিদা থাকতেই পারে। সবাই উন্নত জীবন যাপন করতে চায়। তবে তারা যেটা করেছেন সেটা সীমা ছাড়িয়ে গেছে। তিনি বলেন, ‘এই সরকারের সফলতা অনেক। কিন্তু দুর্নীতি এবং এ সব অন্যায় সফলতাকে ম্লান করে দিয়েছে। এ সব দুর্বৃত্তদের দমনে সর্বস্তরের সহযোগিতা ও সমর্থন দরকার।’

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে অবক্ষয় হয়েছে। মানুষের কল্যাণ বাদ দিয়ে আমরা নিজের কল্যাণের জন্য মরিয়া। গত একমাসে যে পরিমাণ অন্যায় ও দুর্নীতির খবর এসেছে সেটা দুঃখজনক। এটা সমাজকর্মী ও রাজনৈতিক কর্মীর জন্য চপেটাঘাত। অন্যায় দুর্নীতি হয় না, এমন কোনো রাষ্ট্র নেই। তবে এখন যেটা হয়েছে সেটা সীমা লঙ্ঘন করেছে।’

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘যারা সমাজকর্মী ও সমাজের মঙ্গল চায় তাদের উচিত দেশের কল্যাণ কাজ করে দুর্নীতির বির‚দ্ধে সো‛চার হওয়া। প্রধানমন্ত্রীকে সৈয়দ ইবরাহিম কল্যাণ পার্টির বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘দীর্ঘ সময়ের রাজনীতিতে এমন শৃ“খলা আগে দেখিনি। দলীয় সভা এত সুশৃঙ্খল হতে পারে তা কল্যাণ পার্টি দেখিয়েছে।’ এ সময় নিজের দলের শৃঙ্খলা নিয়েও কিছুটা হতাশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিক অঙ্গনে বিরোধী দলের ভালো বিষয়গুলো আমরা দেখতে পারি না। তাদের মতামত গ্রহণ করি না। এটা বহুদলীয় রাজনীতিতে শোভা পায় না। বিরোধী দল হলেও দায়িত্বশীল বিরোধী দল হতে হবে। এটা না হলে দেশ কখনোই উন্নতি
করতে পারে না। ’ তবে কাউকে হেয় করে বিরোধিতা না করে গঠনমূলক বিরোধিতা করার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানিয়ে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল সংসদ সদস্য সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক বলেন ‘সরকারের সমালোচনার একটা জায়গা দুর্নীতি। সরকারের বড় বড় পর্যায়ের ব্যক্তিরা টাকা পাচার ও নানা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে বলতে চাই, আপনি দুর্নীতির বির‚দ্ধে শক্ত অবস্থান নিন। কল্যাণ পার্টি আপনাদের সঙ্গে আছে। ’তিনি বলেন, ‘শুধু দুর্নীতি নয়, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, অর্থপাচার রোধ ও মাদকের বিরুদ্ধে সরকারের সব পদক্ষেপে কল্যাণ পার্টি সঙ্গে থাকবে।’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহাসচিব আবদুল আউয়াল মামুন, কল্যাণ পাটির চেয়ারম্যানের বিশেষ উপদেষ্টা শারমিন ফাতেমা, অতিরিক্ত মহাসচিব মোহোম্মোদ ফরহাদসহ পার্টির বিভিন্ন জেলার নেতাকর্মীরা।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ