নোয়াখালীতৈ বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ, পথে পথে পুলিশি বাঁধার অভিযোগ - জনতার আওয়াজ
  • আজ ভোর ৫:০৭, বুধবার, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

নোয়াখালীতৈ বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ, পথে পথে পুলিশি বাঁধার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: বুধবার, মার্চ ২, ২০২২ ২:২২ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: বুধবার, মার্চ ২, ২০২২ ২:২২ অপরাহ্ণ

 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

তেল-গ্যাস-বিদ্যুৎ-পানিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও সর্বগ্রাসী দূর্নীতির প্রতিবাদে নোয়াখালীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলা বিএনপি।

আজ বুধবার বিকেলে নোয়াখালী প্রেস ক্লাব চত্ত্বরে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ওজেলা সভাপতি গোলাম হায়দারের সভাপতিত্বে এ বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য ও ঢাকা মহানগর বিএনপি দক্ষিণ এর আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম।

জেলা বিএনপির সহ দপ্তর সম্পাদক ওমর ফারুক টপির পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি অ্যাড. এবিএম জাকারিয়া, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আবদুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলমগীর আলো, শহর বিএনপির সভাপতি আবু নাছের, সদর উজেলা বিএনপির সভাপতি সলিম উল্যাাহ বাহার হিরণ, সাধারণ সম্পাদক ভিপি জসিম উদ্দিন, জেলা যুবদল সাধারণ সম্পাদক নুরুল অমিন খান, জেলাস্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি ছাবের আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, জেলা ছাত্রদল সভাপতি আজগর উদ্দিন দুখু, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান মো. নোমান প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, নিত্য প্রয়োজরীয় দ্রব্য ক্রয় সীমার বাহিরে। জিনিসপত্র কিনতে সাধারণ মানূষের নাভিশ্বাস উঠেছে। দেশে আইন শৃ্খংলার চরম অবনতি, ভোটাধিকার বলতে কিছু নেই, বিরোধীদের মত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই। তবুও সরকার ক্ষমতা আখড়ে বসে আছে। কারণ এ সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। প্রশাসনের সহযোগীতায় রাতের আঁধারের ভোটে এ সরকার গঠন হয়েছে। তারা সাধারণ মানুষের কথা কি ভাববে? দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি তাদের কোনো দরদ বা দায়বদ্ধতা নেই। তবুও তারা ক্ষমতা ছাড়তে চায়না। সরকারের কোনো অনুভূতি নেই। তারা অনুভূতিহীন, মনুষ্যত্বহীন হয়ে গেছে। জনগণের চোখের চাহনি ও মনের ভাষা বুঝার অনুরোধ জানিয়ে বক্তারা বলেন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কথা চিন্তা করে অবিলম্ভে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা ছেড়ে দিন।

বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন নিরপেক্ষ হবেনা উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, সাধারণ মানুষ তাদের মত প্রকাশ করে ভোটের মাধ্যমে। নীরবে, নি:সংকোচে তারা ব্যালটের মাধ্যমে তাদের প্রতি অন্যায়, জুলুমের প্রতিবাদ করে। কিন্তু বর্তমানে তাও সম্ভব হচ্ছেনা। কারণ বর্তমান সরকার সাধারণ মানুষের স্বাধীন মত প্রকাশকে ভয় পায়। তারা সাধারণ মানূষকে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ থেকে দূরে সরিয়ে রাখছে। কারণ সরকার জানে, নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে সাধারণ মানুষ তাদের ভোট দেবে না। তাই সরকার চাইছে তারা ক্ষমতায় থেকেই নির্বাচন করতে। কিন্তু আগামীতে প্রহসনের কোনো নির্বাচন বাংলার মানুষ বরদাশত করবেনা। তারা উপযুক্ত জবাব দেয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। শুধু সময় ও সুযোগ প্রয়োজন।

আজকের এই বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশী বাঁধার অভিযোগ এনে বক্তারা বলেন, পথে পথে পুলিশ সমাবেশে আসতে দলীয় নেতা কর্মীদের বাঁধা দিয়েছে। তারপরও সমাবেশে আগত জনস্রোত পুলিশ থামাতে পারেনি। সমাবেশ সফল হয়েছে। কোনো বাঁধা আজকের সমাবেশকে ভন্ডুল করতে করতে পারেনি।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ