বৃটিশ অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য, লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে বরখাস্ত রূপা হক – জনতার আওয়াজ
  • আজ বিকাল ৫:৫৪, মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১২ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

বৃটিশ অর্থমন্ত্রীকে নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য, লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে বরখাস্ত রূপা হক

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ ২:৪৩ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ ২:৪৩ অপরাহ্ণ

 

বৃটেনের অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কোয়ার্টেংকে নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য করায় লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এমপি রূপা হককে। সোমবার লিভারপুলে লেবার পার্টির এক অনুষ্ঠানে কোয়াসি কোয়ার্টেংকে ‘লোক দেখানো কৃষ্ণাঙ্গ’ বলে মন্তব্য করেন রূপা হক। সেই মন্তব্য নিয়ে সমালোচনার প্রেক্ষাপটে মঙ্গলবার তার বিরুদ্ধে এই ব্যবস্থা নিল লেবার পার্টি। এ খবর দিয়েছে ইভেনিং স্টান্ডার্ড।

সোমবার ওই অনুষ্ঠানের প্রশ্ন-উত্তর পর্বে অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কোয়ার্টেংকে উদ্দেশ্য করে রূপা হক বলেন, তিনি লোক দেখানো কৃষ্ণাঙ্গ। অথচ তিনি অন্যদের মতই ব্যয়বহুল স্কুলে পড়েছেন, ইটনে পড়াশুনা করেছেন। বরাবর তিনি দেশের সেরা স্কুলগুলোতে ছিলেন। আপনি যদি বিবিসির টুডে প্রোগ্রামে তার কথা শোনেন, আপনি বুঝতেই পারবেন না যে তিনি কৃষ্ণাঙ্গ। রূপা হকের এমন মন্তব্যের পরই তাকে বহিস্কার করা হয়েছে।

বিবিসির খবরে জানানো হয়েছে, লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে বরখাস্ত হওয়ায় রূপা হককে আপাতত পার্লামেন্টে বসতে হবে স্বতন্ত্র এমপি হিসেবে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখারও ঘোষণা দিয়েছে পার্লামেন্টের বিরোধী দল লেবার পার্টি। ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের চেয়ার জেইক ব্যারি লেবার এমপি রূপার ওই মন্তব্যকে ‘বর্ণবাদী ও জঘন্য’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। লেবার পার্টির ডেপুটি লিডার অ্যাঞ্জেলা রেনার ওই মন্তব্যকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলেছেন।

ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসনের এমপি রূপা হক।

তিনি যদিও বলছেন যে, ওই মন্তব্যের জন্য অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কোয়ার্টেংয়ের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। লিভারপুলে লেবার পার্টির কনফারেন্সে দলের নেতা কিয়ার স্টারমারের বক্তব্য শুরুর কিছু সময় আগে রূপা হকের ওই মন্তব্যের অডিও ক্লিপ প্রকাশ করে গুইডো ফকস ওয়েবসাইট। তার ওই মন্তব্যের অডিও প্রকাশ হলে বৃটেনের রাজনৈতিক অঙ্গনে শুরু হয় তুমুল সমালোচনা। কনজারভেটিভ নেতারা দাবি তোলেন, ওই মন্তব্যের জন্য লেবার এমপিকে ক্ষমা চাইতে হবে। এমনকি রূপা হকের নিজের দলের নেতারাও তার মন্তব্যকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলেন।

লেবার পার্টির ডেপুটি লিডার অ্যাঞ্জেলা রেনার বিবিসিকে বলেন, রূপা হকের ক্ষমা চাওয়া উচিত। আর পার্টির পররাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র ডেভিড লামি বলেন, ওই মন্তব্য দুর্ভাগ্যজনক। আমি নিজে কখনো এভাবে বলতাম না। এরপরই লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে রূপা হককে বরখাস্তের খবর আসে। পরে রূপ হক এক টুইটে বলেন, আমি কোয়াসি কোয়ার্টেংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি এবং আগের দিনের মন্তব্যের জন্য ‘আন্তরিকভাবে’ ক্ষমা প্রার্থনা করেছি। আমার মন্তব্য সুবিবেচনাপ্রসূত ছিল না। ওই মন্তব্যে যারাই আঘাত পেয়েছেন, আমি হৃদয় থেকে তাদের কাছে ক্ষমা চাইছি।

এ মাসের শুরুতেই বৃটেনের অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পান কোয়াসি কোয়ার্টেং। তিনি পূর্ব লন্ডনে জন্মগ্রহণ করলেও তার পূর্বপুরুষের বসবাস ছিল আফ্রিকার দেশ ঘানায়। আর ইলিংয়ে জন্ম নেওয়া রূপা হকের বাবা-মা বৃটেন গিয়েছিলেন বাংলাদেশের পাবনা থেকে। তিনি একাধারে লেখক, মিউজিক ডিজে, কলামিস্ট হিসাবে পরিচিত। রূপা হক কেমব্রিজে পড়েছেন রাজনীতি, সামাজিক বিজ্ঞান ও আইন। আর কিংস্টন ইউনিভার্সিটিতে এতোদিন পড়িয়েছেন সমাজ বিজ্ঞান, অপরাধ বিজ্ঞান, গণমাধ্যম ও সংস্কৃতি অধ্যয়নের মতো বিষয়।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com