রাতে বাতি জ্বালিয়ে ঘুমালে যে রোগ হয় – জনতার আওয়াজ
  • আজ রাত ২:৩০, বুধবার, ৫ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

রাতে বাতি জ্বালিয়ে ঘুমালে যে রোগ হয়

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: শনিবার, মে ২৮, ২০২২ ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: শনিবার, মে ২৮, ২০২২ ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ

 

ঘুমানোর আগে বাতি জ্বালিয়ে রাখার অভ্যাস অনেকেরই আছে। কেউ এটি করে থাকেন ইচ্ছে করেই , অবার কেউ অলসতা করে। তবে কারো ঘুটঘুটে অন্ধকারে ঘুমাতেও অস্বস্তি লাগে। কেউ আবার মৃদু আলোর বাতি জ্বালিয়ে ঘুমান। তবে রাতে বাতি জ্বালিয়ে ঘুমালে কিন্তু স্বাস্থ্যের ক্ষতি হতে পারে।

রাতে আলো জ্বালিয়ে ঘু্মানোর ফলে ঘুমের মধ্যেও স্নায়ু অধিক সক্রিয় হয়ে থাকে। হৃদস্পন্দন বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি হয়

রাতে বাতি জ্বালিয়ে ঘুমানোর ক্ষতি সম্পর্কে শিকাগোর নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলেছেন, সারা রাত এই রকমের আলোয় ঘুমালে শরীরে তার প্রভাব পড়তে পারে। তাদের মতে, রাতে বিভিন্ন রঙের আলোর নিচে ঘুমালে শরীরের গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। বিপাক ক্রিয়ায় বিঘ্ন ঘটে। এমনকি হৃদরোগ, ডায়াবেটিসের ঝুঁকিও বাড়িয়ে তোলে। সেই সঙ্গে বাড়তে পারে হৃদস্পন্দনের মাত্রাও।

রাতে আলো জ্বালিয়ে ঘুমালে শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা বেড়ে যায়। গবেষকরা প্রায় ২০ জন ব্যক্তির উপর এই গবেষণাটি পরিচালনা করেন। তার মধ্যে প্রায় ১০ জনের রাতে মৃদু আলো জ্বালিয়ে ঘুমানোর অভ্যাস রয়েছে। এবং তাদের মধ্যে অনেকেই ডায়াবেটিস, হৃদরোগের মতো বিভিন্ন শারীরিক সমস্যাও আছে। রাতে আলো জ্বালিয়ে ঘু্মানোর ফলে ঘুমের মধ্যেও স্নায়ু অধিক সক্রিয় হয়ে থাকে। ফলে শান্ত মস্তিষ্কে ঘুম হয় না। ভেতরে ভেতরে উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। হৃদস্পন্দন বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই শিকাগোর নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, সুস্থ থাকতে রাতে অন্ধকার ঘরে ঘুমানোই ভালো। যদি একান্তই অন্ধকার ঘরে ঘুমাতে না ইচ্ছে করে, তা হলে একটি হলুদ রঙের আলো জ্বালিয়ে রাখতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ