১৮ সালের নির্বাচনের চেয়েও এবারের নির্বাচন বেশী খারাপ হয়েছে : কাদের সিদ্দিকী - জনতার আওয়াজ
  • আজ রাত ১২:৫১, মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৪শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি
  • jonotarawaz24@gmail.com
  • ঢাকা, বাংলাদেশ

১৮ সালের নির্বাচনের চেয়েও এবারের নির্বাচন বেশী খারাপ হয়েছে : কাদের সিদ্দিকী

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতার আওয়াজ ডটকম
প্রকাশের তারিখ: মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ৯:১৯ অপরাহ্ণ পরিবর্তনের তারিখ: মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৪ ৯:১৯ অপরাহ্ণ

 

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেছেন, ২০১৮ সালের নির্বাচন যেমনি কোন রকম গুনগত মান সম্পন্ন ছিলনা, ২০২৪ সালের নির্বাচন তার চাইতেও বেশি খারাপ হয়েছে। তিনি বলেন, আমি ব্যাক্তিগতভাবে খুবই আশাবাদি ছিলাম। আমি বিশ্বাস করেছিলাম একটি সুষ্ঠু ,অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে। কিন্ত অত্যন্ত দুঃখের সাথে বলতে হয় ১৮’ সালের নির্বাচনের চাইতেও ২৪’ সালের নির্বাচন খারাপ হয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে মিট দ্যা প্রেসে কাদের সিদ্দিকী এসব কথা বলেন।

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, ১৮ সালের নির্বাচনে তবুও কিছু লোক ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিয়েছিল। এবার সেই পরিমান লোকও ভোটকেন্দ্রে যায় নাই, ভোট দেয় নাই ও ভোট দিতে পারেনাই। অধিকাংশ ক্ষেত্রে মানুষ উৎসাহ পায় নাই তাই ভোট দিতে যায় নাই। সাধারন ভোটারদের ৫ শতাংশও ভোট দিতে যায়নি। যারা অন্যদল করে তারা ১ শতাংশও ভোট দিতে যায় নাই। আমার নিজের দলেরও ৫০ শতাংশ ভোট দিতে যায় নাই।

তিনি বলেন, আমি নির্বাচনে হেরেছি। প্রকৃতই যদি হেরে থাকি তবে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবর রহমানও হেরেছেন। বাংলাদেশে রাজনৈতিকভাবে বঙ্গবন্ধুর অনুসারী কাদের সিদ্দিকীর আগে একজনও নেই। পরে আছে কিনা বলতে পারবোনা। এই পরাজয় যদি সঠিকভাবে হয়ে থাকে তাহলে এটা মুক্তিযুদ্ধের পরাজয়, মুক্তিযোদ্ধাদের পরাজয়। মানুষ মুক্তিযুদ্ধ চায় না অথবা মুক্তিযোদ্ধাকে চায় না। যদি ধরে নেয়া হয় নির্বাচনে আমরা সত্যিকারভাবে হেরেছি। তাহলে মানুষ এসব কিছু থেকে মুখ সরিয়ে নিয়েছে। আর যদি এটাকে ইঞ্জিনিয়ারিং বলা হয়, কারচুপি বলা হয়, ডাকাতি বলা হয় তাহলে সেটা অন্য জিনিস।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী বলেন, সরকার ভোটের আগেও স্বস্তিতে ছিলনা। আগামী দিনগুলোতেও খুব একটা স্বস্তিতে থাকতে পারবেনা। আমি নির্বাচন করেছি অনিয়ম হয়েছে কিন্তু কথা হলো চোরের বিচার চোরের কাছে দিব নাকি,তাই কোথাও অভিযোগ দেয়নি।

এসময় টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এড্ভোকেট জাফর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিনসহ বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকরাসহ টাঙ্গাইল জেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারন সম্পাদক সালেক হোসেন হিটলু, কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য ফরিদ আহমেদ ও জেলা যুব আন্দোলনের সভাপতি আতিকুর রহমান সাদেকসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
 
 
জনতার আওয়াজ/আ আ
 

জনপ্রিয় সংবাদ

 

সর্বোচ্চ পঠিত সংবাদ